কক্সবাজারে প্রেমে ব্যর্থ হয়ে পাঁচতলা থেকে ঝাপ দিয়ে প্রেমিক জুটির আত্মহত্যার চেষ্টা!

প্রতীকি ছবি...

।। শাহজাহান চৌধুরী শাহীন, নিউজ কক্সবাজার.কম ।।

প্রেমে ব্যর্থ হয়ে কক্সবাজার শহরে পাঁচ তলা ভবনের ছাদ থেকে নিচে ঝাপ দিয়েছে এক প্রেমিকজুটি। তবে মরণ যাত্রায় তারা প্রাণে বেঁচে গেলেন। তাদের কক্সবাজারের ফুয়াদ আল খতিব হাসপাতালের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। সোমবার (১৫ এপ্রিল) সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে শহরের থানা রাস্তার মাথা এলাকায় বিউটি ফার্মেসী ভবনে এ ঘটনা ঘটে।

আহত প্রেমিক জুটি হল, চট্টগ্রামের বোয়ালখালী থানার শাকছড়া এলাকার বাসিন্দা ও কলাতলির দারুচিনি রেস্তোরা মালিক আবু মুসার ছেলে কলেজ ছাত্র শাকিল মোর্তজা অভি (১৮) ও উখিয়ার কোর্টবাজারের বাসিন্দা ঠিকাদার সাইফুল ইসলামের মেয়ে ইসরাত জাহান (১৪)। আবু মুসা কক্সবাজার শহরের থানা রাস্তার মাথার ওই ভবনের পঞ্চম তলায় ভাড়াটিয়া এবং ওই ঠিকাদার সাইফুল ইসলামের শ্বশুরের মালিকানাধীন ভবন। তিনিও সেখানে ভাড়া থাকতেন।

জানা গেছে, প্রতিবেশী থেকে গোপনে প্রেমে জড়িয়ে পড়েন ওই তরুণ-তরুণী। কিন্তু বাধ সাধে দুই পরিবার। হঠাৎ প্রেম বঞ্চনা বা পরিবারের অমতের কারণে এই জুটি ৫ম তলা থেকে লাফ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। একজন পড়ে যায় ল্যাট্রিনের টাংকিতে, অপরজন পড়ে টিনের ছাউনির উপর।

তবে পরিবারের দাবি, ভবনের ছাদে খেলতে গিয়ে রেলিং না থাকায় তারা ৫মতলা থেকে পড়ে গেছে। কিন্তু ছাদে গিয়ে দেখা যায় সেখানে রেলিং দেয়া রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানাযায়, সন্ধ্যার পর ভবনটির পঞ্চম তলা থেকে দুইজন হঠাৎ নিচে পড়ে যেতে দেখেন। পরে উপস্থিত জনগণ ও পুলিশ তাদের উদ্ধার করে ফুয়াদ আল খতিব হাসপাতালে নেয়া হয়। তবে হাসপাতালের রেস্টিারে তাদের পরিচয় মামা ভাগনি লেখা হয়েছে।তারা দুইজনই ফুয়াদ আল খতিব হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তাদের এক স্বজন জানান, ইশরাত ও অভির মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। অভি চট্টগ্রামের একটি কলেজে পপড়েন। ইশরাত কক্সবাজার কেজি স্কুল থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছেন। ফলাফল আসার পর তাদের পরিবার বসে একটা সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু কেন তারা এক সাথে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে তা জানাতে পারেননি তিনি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফরিদ উদ্দিন খন্দকার বলেন, কি কারণে তারা ৫মতলা থেকে লাফ দিয়েছে তা এখনো জানা যায়নি। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছেন।

 

আপনার মন্তব্য দিন