কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশের অভিযানে সাজা পরোয়ানা সহ গ্রেফতার- ১১

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন, নিউজ কক্সবাজার :

কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন মামলায় অভিযুক্ত ১১ জনকে গ্রেফতার করেছে। গত ১৭ অক্টোবর সকাল হতে ১৮ অক্টোবর সকাল পর্যন্ত অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সৈয়দ আবু মোঃ শাহজাহান কবিরের নেতৃত্বে এ অভিযান চালানো হয়। অভিযানে আরো অংশ নেন, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ খায়রুজ্জামান, পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশনস্ এ্যান্ড কমিউনিটি পুলিশিং) মোহাম্মদ ইয়াছিন, পুলিশ পরিদর্শক (ইন্টিলিজেন্স) মোহাম্মদ আরিফ ইকবাল, এসআই রাজীব চন্দ্র পোদ্দার, সনৎ বড়–য়া, এসআই মোস্তাক আহমদ, এএসআই লোকমান, এএসআই লিটন মিয়া, এএসআই বাবলু সঙ্গীয় ফোর্স এবং ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান খান।

নিয়মিত মামলা সংক্রান্তে গ্রেফতারকৃত আসামীরা হলেন –

১। রমজান, পিতা- আহম্মদ হোসেন, সাং- মোস্তাক পাড়া, সমিতি পাড়া, থানা ও জেলা- কক্সবাজার। ২। মোঃ আব্দুল গফুর, পিতা- আবু তাহের, সাং- ঘোনার পাড়া, কাটাপাহাড়, থানা ও জেলা- কক্সবাজার। ৩। রফিকুল হাসান, পিতা- নুরুল হক, সাং- কলাতলী আদর্শগ্রাম, থানা ও জেলা- কক্সবাজার। ৪। মোঃ টিপু, পিতা- মৃত ইসহাক, সাং- বড় হাতিয়া , হাজি পাড়া, থানা- লোহাগাড়া, জেলা- চট্টগ্রাম। ৫। ওয়াংচে রাখাইন, পিতা- মৃত আমিন প্রঃ আমিন, সাং- মগপাড়া, বড় বাজার, থানা ও জেলা- কক্সবাজার। ৬। মঈনুল ইসলাম প্রঃ বুলবুল, পিতা- মোঃ রফিক আহম্মদ, সাং- নুন্নছড়ি, জোয়ারিয়ানালা, থানা- রামু, জেলা- কক্সবাজার। ৭। শান্তা মনি হিরু, পিতা- মৃত ইয়াছিন, সাং- ঘোনার পাড়া, বিবেকান্দ স্কুলের পাশে, থানা ও জেলা- কক্সবাজার। ৮। ইব্রাহিম, পিতা- নুরুল হক, সাং- উত্তর মিঠাছড়ি, জোয়ারিয়ানালা, থানা ও জেলা- কক্সবাজার।

পরোয়ানা সংক্রান্তে গ্রেফতারকৃত আসামীরা হলেন-

১। নুরুল আলম, পিতা- মৃত আলী চাঁন, সাং- সমিতি পাড়া, থানা ও জেলা- কক্সবাজার। ২। মোহাম্মদ আলমগীর বাদশা, পিতা- মৃত মতিউর রহমান, সাং- মতিউর রহমান উত্তর কুতবদিয়া পাড়া, থানা ও জেলা- কক্সবাজার। ৩। দিদারুল আলম, পিতা- মোক্তার আহমদ, সাং- দক্ষিণ মুহুরী পাড়া, থানা ও জেলা- কক্সবাজার।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সৈয়দ আবু মোঃ শাহজাহান কবির তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন বিভিন্ন মামলায় গ্রেফতারের পর আদালতের মাধ্যমে তাহাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
এলাকার আম জনতা ও পর্যটকদের সার্বিক নিরাপত্তার নিশ্চিতের লক্ষ্যে মামলায় অভিযুক্ত ও চিহিৃত অপরাধীদের বিরুদ্ধে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

আপনার মন্তব্য দিন