টানা ৫ দিনের ছুটি শেষ হলেও পর্যটকে ভরপুর সমুদ্রপাড়

মিজানুর রহমান, নিউজ কক্সবাজার :

ঈদুল আজহার টানা ৫ দিনের ছুটি শেষ হলেও লাখো পর্যটকের পদচারণায় মুখর কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত। সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রোববার (২৬ আগস্ট) সকাল থেকে সন্ধা পযর্ন্ত সমুদ্র সৈকতে লাবনী, সুগন্ধা ও কলাতলীসহ ১১ টি পয়েন্টে পর্যটকের উপচে পড়া ভীড় দেখা গেছে। এদিকে টানা পাঁচদিনের ছুটি শেষ হলেও কর্মস্থলে ফিরেনি অনেক পর্যটক।
পাহাড়, সমুদ্র আর ঝর্ণার টানে যান্ত্রিক শহরের মানুষগুলো পর্যটন নগরিতে আসছে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্ট্যরা। চলতি মাসের শেষ দিন পর্যন্ত পর্যটকের এ চাপ থাকবে বলে আশা করছেন পর্যটন ব্যবসায়ীরা।
হোটেল-মোটেল মালিক সমিতির নেতারা বলছেন, ঈদুল আজহার আগের দিন থেকেই কক্সবাজারে লাখো পর্যটক অবস্থান করছিল। এবার ঈদের ছুটিতে লাখো পর্যটক আসে। কিন্তু ছুটি শেষ হলেও এখনো পর্যটকের চাপ রয়েছে।
ঢাকা ও চট্রগ্রাম থেকে আসা পর্যটক রুমী ও জীবন, রুনা ও রাজু দম্পতি বলেন, আমরা ঈদের একদিন পর থেকে কক্সবাজারে অবস্থান করছি। এবার ঈদে ছুটির চেয়ে একটু বেশী বেড়াতে চাই। তাই ফিরে যায়নি। আরও কয়েকদিন থাকবো।
টাঙ্গাইল থেকে আসা পর্যটক আজাদ বলেন, ছুটি শেষ কাল ফিরে যাবো। তারপরও পরিবার পরিজন নিয়ে ছুটির চেয়ে একটা দিন বেশী ছিলাম। খুব ভাল লাগছে।
সিলেটে থেকে আসা পর্যটক রামিউল হাসান রিশাদ বলেন, বাবা-মার সাথে এসেছি। গত শুক্রবার খুব মজা করছি সবাই মিলে। সমুদ্রে গোচল করা থেকে শুরু করে সবখানে গুরেছি।
সী-গাল হোটেলের ম্যানেজার নুরে আলম মিথুন জানান, আমাদের হোটেলে সবগুলো কক্ষ আগামী ২৯ তারিখ পর্যন্ত বুকিং আছে। যা প্রতিনিয়ত বাড়ছে। এরপরও অনেকে ফোন করে বুকিং দিতে চাইলেও নিতে পারছি না। ঈদের পর থেকে পর্যন্ত প্রায় কোটি টাকার ব্যবসা হয়েছে বলেও জানান তিনি।
কক্স টুডের কর্মকর্তা আবু তালেব জানান, পর্যটকসহ স্থানীয় অতিথিদের বরণে আমরা নানা উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। বিশেষ করে শিশু বিনোদনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তবে ছুটি শেষ হলেও এখনো প্রচুর বুকিং পাচ্ছি। আগামী ৩ দিন পর্যন্ত আমাদের হোটেলের সব রুম বুকিং হয়ে গেছে।
ট্যুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার জোনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফজলে রাব্বী বলেন, ঈদ উপলক্ষে কক্সবাজার শহর ও সমুদ্র সৈকতের নিরাপত্তায় পুলিশ, র‌্যাব, বিচকর্মী ও ট্যুরিস্ট পুলিশ কাজ করছে। যাতে পর্যটকরা কোন ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনার শিকার না হন সে দিকে কেয়াল রাখছে ট্যুরিস্ট পুলিশ। ছুটি শেষ হলেও এখনো পর্যটকের চাপ রয়েছে। তাই আমরা বার্তি সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য দিন