অবশেষে শুরু হচ্ছে টেকনাফ-কক্সবাজার সড়কের নির্মাণ কাজ

অবশেষে শুরু হচ্ছে টেকনাফ-কক্সবাজার সড়কের নির্মাণ কাজ
মিজানুর রহমান
দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর অবশেষে চলতি বর্ষা শেষে টেকনাফ-কক্সবাজার সড়কের অসমাপ্ত প্রায় ৩১ কিলোমিটার সড়কের কাজ শুরু হচ্ছে। গতকাল (২৮ জুন) মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় টেকনাফের মেরিন ড্রাইভ সড়ক প্রসস্তকরণ ও টেকনাফ-কক্সবাজার আঞ্চলিক আঞ্চলিক মহাসড়কের ৩১ কিলোমিটার সড়কের অর্থ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। আগামী ২০২২- ২০২৩ অর্থবছরের টেকনাফ- কক্সবাজার সড়কের হোয়াইক্যং ইউনিয়নের উনছিপ্রাং হতে টেকনাফ পৌরসভার শাপলা চত্বর পর্যন্ত প্রায় ৩১ কিলোমিটার সড়ক নির্মানের জন্য টেন্ডার আহ্বান করা হবে।সড়ক ও জননপথ বিভাগের সুত্র অনুযায়ী চলতি বর্ষা মৌসুম শেষে সড়কের নির্মান কাজ শুরু হতে পারে বলে আভাস দিয়েছেন।
এ বিষয়ে সড়ক ও জনপদ বিভাগের টেকনাফ উপজেলার দায়িত্বরত সহকারী প্রকৌশলী কিটত্ব চাকমা নিকট জানতে চাইলে তিনি অধিকারকে জানান,অসমাপ্ত টেকনাফ- কক্সবাজার আঞ্চলিক সড়কের ৫ টি সেতু,প্রায় ১৭ টি কালভার্টসহ প্রায় ৩১ কিলোমিটারের সড়কের কাজ বর্ষা শেষে আরম্ভ হতে পারে।এতে ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ১’শত ৫০ কোটি টাকা।এ সড়ক দীর্ঘদিন পর্যন্ত সংস্কার না হওয়ায় সড়কটি মরন ফাঁদে পরিনত হয়েছে। প্রতিদিন এই সড়কে প্রায় ২/৩ টি ছোট বড় দুর্ঘটনা সংঘটিত হয়ে আসছে। এতে অনেক প্রাণহানী হচ্ছে।
এদিকে ২০১৭ সালে মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গা শরনার্থী বাংলাদেশে প্রবেশ করায় এই সড়কের অবস্থা আরও নাজুক হয়ে পড়েছে।বর্ষা শেষে এই সড়ক নির্মিত না হলে এই সড়ক দিয়ে যাতায়াত করা কঠিন হয়ে পড়বে বলে গাড়ির মালিক,চালক,হেলপারগণ ও যাত্রী সাধারণগণ জানান।দীর্ঘদিনের জরাজীর্ণ সড়ক নির্মানে প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা একনেকে মোটা অংকের টাকা বরাদ্দ দেওয়ায় এ সড়কে যাতায়াত কারী শতশত স্থানীয় লোকজন প্রধান মন্ত্রী কে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।কখন এই সড়ক নির্মান হবে টেকনাফ,উখিয়া উপজেলার ৭ লাখ জনসাধারণ সময়ের প্রহর গুনছেন।

Related Articles