আসামি ধরতে গিয়ে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হামলায় পুলিশ সদস্য আহত

আসামি ধরতে গিয়ে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হামলায় পুলিশ সদস্য আহত

উখিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি।

কক্সবাজার উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসীকে আটক করতে গিয়ে হামলার শিকার হয়েছেন এক পুলিশ সদস্য। এ ঘটনায় অভিযুক্ত এক রোহিঙ্গা যুবককে আটক করা হয়েছে।

আহত আবু সাঈদ (২২) রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আইনশৃঙ্খলায় নিয়োজিত পুলিশের বিশেষায়িত ইউনিট ১৪ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নে (এপিবিএন) কর্মরত।

আজ শনিবার দুপরে উখিয়ার বালুখালী ৭ নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের নৌকার মাঠ এলাকার ডি-৫ ব্লকে এ ঘটনা ঘটে।

এপিবিএন সূত্রে জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের শীর্ষ সন্ত্রাসী জুবায়েরকে আটক করতে যায় পুলিশের একটি দল। এ সময় জুবায়েরের ভাই সানাউল্লাহসহ চার-পাঁচজন যুবক পুলিশ সদস্যদের ওপর হামলা করে পালিয়ে যায়। সানাউল্লাহর ধারালো দা-এর আঘাতে কনস্টেবল আবু সাঈদ গুরুতর আহত হন।

পরে আবু সাঈদকে আহত অবস্থায় কুতুপালং এমএসএফ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে রেফার করেন।

সাঈদ বর্তমানে জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। দায়ের কোপে তাঁর ডান হাতের কবজিতে গভীর ক্ষত সৃষ্টি হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ১৪ এপিবিএনের অধিনায়ক (অতিরিক্ত ডিআইজি) সৈয়দ হারুন অর রশীদ জানান, এ ঘটনায় অভিযুক্ত একজনকে আটক করা হয়েছে। জুবায়েরসহ বাকিদের আটক করতে অভিযান চলছে। তবে আটক ব্যক্তি অভিযুক্ত সানাউল্লাহ কি না, তা নিশ্চিত করতে পারেননি সৈয়দ হারুন।

উল্লেখ্য, কুতুপালং-২ ইস্ট রোহিঙ্গা ক্যাম্পের হামিদ হোসেনের ছেলে জুবায়ের অপহরণ, চাঁদাবাজি, হত্যাসহ বিভিন্ন অপরাধে জড়িত তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

Related Articles