সোমবার, ২২শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
Homeঈদগাঁওঈদগাঁওতে চুরির অপবাদে ইজিবাইক চালককে নির্যাতন

ঈদগাঁওতে চুরির অপবাদে ইজিবাইক চালককে নির্যাতন

সেলিম উদ্দীন

কক্সবাজারের ঈদগাঁওতে চুরির অপবাদ দিয়ে আব্দুল মান্নান (১৬) নামের এক কিশোরকে নির্যাতন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত করে গুরুতর জখম করা হয়েছে।

গত শনিবার বিকেলে দিকে ঈদগাঁও উপজেলার ফকিরা বাজারে এই ঘটনা ঘটে। নির্যাতনের শিকার মান্নান রামু উপজেলার ঈদগড় ইউনিয়নের চিতারপাড়া গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে। পেশায় সে ইজিবাইক চালক।

এই ঘটনায় মান্নানের মা জান্নাতুল ফেরদৌস দু”জনের বিরুদ্ধে ঈদগাঁও থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। আহত কিশোর এখন চিকিৎসাধীন রয়েছে।

অভিযুক্তরা হলেন, উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের নাপিতখালী চাকার দোকান এলাকার বাসিন্দা আলী হোসেনের ছেলে রমজান আলী ওরফে বেদু ও একই এলাকার আব্দু শুক্কুরের ছেলে জসিম উদ্দিন মিন্টু।

অভিযোগে জানা যায়, গত শনিবার বিকেলে মান্নান তার অটোরিকশাটি বিক্রির উদ্দেশ্যে ফকিরাবাজারে আসেন। বাজারে কিছুক্ষণ অবস্থানের পর পার্কিয়ে থাকা রমজান আলীর মোটরসাইকেলে হামখেয়ালি পনায় বসে তার হাতে থাকা চাবিটি মোটরসাইকেল তেলের ট্যাংকে দিয়ে দেখেন।

বিষয়টি দুর থেকে বাইকের মালিক রমজান আলীর চোখে পড়লে তাকে চোর বলে ধরে ফেলেন। পরে তিনি জসিম উদ্দিনকে ডেকে আনেন। এসময় স্থানীয় জনতার সামনে চুরির অপবাদ দিয়ে দু’জনেই মারতে থাকেন। লাথি-কিল দিয়ে তাকে বেদম পিটুনি দেওয়া হয়।

চুরির বিষয়টি অস্বীকার করে মান্নানের ভাই কামাল জানায়, তার ভাই চুর নন। হামখেয়ালিপনায় মোটরসাইকেলে বসে হাতে থাকা টমটমের চাবি দিয়ে দেখেন মোটরসাইকেলে। এরপর তাকে চুর বলে প্রকাশ্যে নির্যাতন করা হয়েছে।

তার মা জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, তার ছেলে একজন অটোরিকশা চালক। তার মালিকাধীন অটোরিকশাটি বিক্রির উদ্দেশ্যে সেখানে যান মান্নান। মোটরসাইকেলে বসার কারণে চুর সন্দেহে তার ছেলেকে বেদড়ক মারধর ও নির্যান করা হয়েছে।

ঈদগাঁও ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম কবির বলেন, এই ঘটনায় ওই কিশোরের মা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। তিনি মোটরসাইকেলে বসে কেন চাবি দিলেন; সে অপরাধ করলে অভিযুক্তরা থানায় খবর না দিয়ে তাকে মারধরও কেন করলেন বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments