উখিয়ায় লকডাউন না মানায় ১১ জনকে জরিমানা 

dav
এম. সালাহ উদ্দিন আকাশ, উখিয়া (কক্সবাজার) : করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকার ঘোষিত সপ্তাহব্যাপী লকডাউনের পঞ্চম দিনে কক্সবাজারের উখিয়ায় বিধিনিষেধ অমান্য করায় ১১ মামলায় ১১ ব্যক্তিকে ১৬ হাজার ৭ শত টাকা জরিমানা গুনতে হয়েছে। 
সোমবার (৫ জুলাই) রাত সাড়ে ৮ টার দিকে এ তথ্য নিশ্চিত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন আহমেদ।  
সূত্রে জানা যায়, সর্বাত্মক লকডাউনের পঞ্চম দিনেও উপজেলায় কঠোরভাবে বিধিনিষেধ মানাতে মাঠে ছিল উপজেলা প্রশাসন। গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে পুলিশ চেকপোস্টে তল্লাশির পাশাপাশি মাঠে ছিল সেনাবাহিনী, বিজিবি, র‌্যাব। বন্ধ রয়েছে প্রায় দোকান পাঠ, মার্কেট, ব্যাংক, বীমা, সরকারী, বেসরকারী, স্বায়ত্তশাসিত অফিস। চলছে না কোন ধরনের গণপরিবহন। তবে বিচ্ছিন্নভাবে কিছু কিছু টমটম, সিএনজি চলার চেষ্টা করছে। সীমিত আকারে খোলা রয়েছে নিত্য প্রয়োজনীয় মুদি, ঔষধ দোকান, কাঁচা বাজার, রেস্তোরাঁ।
এদিকে রোহিঙ্গাদের সেবায় খাদ্য ও স্বাস্থ্য খাতে নিয়োজিত এনজিও সংস্থার কর্মীবাহী গাড়ি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে যাতায়াত করতে দেখা গেছে। 
উখিয়া উপজেলা প্রশাসনের কঠোর ভূমিকার কারণে উপজেলার সর্বত্র সর্বাত্মক লকডাউনে প্রধান সড়কগুলো ফাঁকা ছিল।
উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন আহমেদ জানিয়েছেন, লকডাউন অমান্য করায় সর্বাত্মক লকডাউনের পঞ্চম দিনে ১১ মামলায় ১১ ব্যক্তিকে ১৬ হাজার ৭ শত টাকা জরিমানা করা হয়েছে। তিনি করোনার সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত নির্দেশনা মেনে চলতে সকলের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন। এছাড়াও লকডাউনের কারণে কর্মহীন হয়ে কেউ খাদ্য সংকটে পড়ে জাতীয় জরুরী সেবা ৩৩৩ এ কল দিলে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন এই কর্মকর্তা ।
উল্লেখ্য, বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ সামাল দিতে দেশজুড়ে চলমান কঠোর লকডাউন আরও সাত দিন বাড়িয়েছে সরকার। এরই ধারাবাহিকতায় চলমান বিধিনিষেধ জারি থাকবে আগামী ১৪ জুলাই পর্যন্ত। সোমবার (৫ জুলাই) কঠোর লকডাউনের সময় বাড়িয়ে নতুন করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।
আপনার মন্তব্য দিন