কক্সবাজারের ৩৪ টি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে করোনার টিকা প্রদান শুরু

নিজস্ব প্রতিনিধি

সারাদেশের মতো কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পেও করোনার টিকা প্রদানের আওতায় আনা হয়েছে। মিয়ানমারের বাস্তুচ্যুত হয়ে আসা রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর মাঝে এই টিকা দেয়ার কার্যক্রম শুরু হলো। উখিয়া ও টেকনাফে অবস্থিত ৩৪ টি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে 
মঙ্গলবার (১০ আগস্ট) থেকে করোনার টিকা প্রদান কর্মসূচি শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা ১১টায় উখিয়া কুতুপালং ক্যাম্প-৪ এক্সটেনশন এ আনুষ্ঠানিকভাবে টিকা প্রদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন শরনার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কার্যালয়ের কমিশনার অতিরিক্ত সচিব শাহ রেজওয়ান হায়াত।

ক্যাম্পের রোহিঙ্গাদের মধ্যে প্রথম দফায় ৫৫ বছরের ঊর্ধ্বে ৪৮ হাজার রোহিঙ্গাকে ৫৬ টি কেন্দ্রে করোনা টিকা দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি একই সময়ে ক্যাম্পের মাঝি, মসজিদের ইমাম এবং টিকাদান কাজে নিয়োজিত স্বেচ্ছাসেবকদেরও টিকা দেয়া হচ্ছে।

কক্সবাজার শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার (আরআরআরসি) কার্যালয়ের কমিশনার শাহ রেজওয়ান হায়াত জানান, ১০ আগস্ট বেলা ১১টা থেকে ৩৪ টি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৫৬ টি কেন্দ্রে টিকা দেয়া হচ্ছে। প্রথম দফায় ৫৫ বছরের বেশি প্রায় ৪৮ হাজার রোহিঙ্গাকে টিকা দেওয়া হচ্ছে। ৫৫ বছরের উর্ধ্ব ছাড়াও ক্যাম্পে টিকাদান কার্যক্রমে নিয়োজিত স্বেচ্ছাসেবক, ক্যাম্পের মাঝি, মসজিদের ইমাম সহ প্রায় ১৮ হাজার জনকে টিকা দেওয়া হবে। টিকাদান কার্যক্রমে স্বাস্থ্য বিভাগের সাথে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ১৮৬টি টিম কাজ করছে। আগামী ১৮ আগস্ট পর্যন্ত ক্যাম্পে এই টিকা প্রদান কার্যক্রম চলবে। মঙ্গলবার প্রথম দিন ৫৬ টি টিকা দান কেন্দ্রে ৭ হাজার জন রোহিঙ্গাকে টিকা দেয়ার জন্য কার্ড দেয়া হয়েছে।

টিকা দেয়ার জন্য আসা রোহিঙ্গারা স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে এই টিকা দিচ্ছে। রোহিঙ্গারা জানিয়েছেন তারা করোনা মহামারী থেকে বাঁচতে এই টিকা নিচ্ছে। তারা সরকারকে ধন্যবাদ জানান।

টিকা প্রদান কর্মসূচির উদ্বোধন অনুষ্ঠানে কক্সবাজারের সিভিল সার্জন ডা: মাহবুবুর রহমান, ইউএনএইচসিআর, আইওএম সহ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মন্তব্য দিন