কক্সবাজারে অস্ত্র তৈরির কারখানার সন্ধান, আটক ৩

শাহ্‌ মুহাম্মদ রুবেল

কক্সবাজারের উখিয়ায় র‌্যাবের সাথে সন্ত্রাসীদের গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় অস্ত্রসহ তিনজনকে আটক করেছে র‌্যাব।

সোমবার (৮ নভেম্বর) ভোরে কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাশে দুর্গম পাহাড়ে এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। সেখানে অভিযান চালিয়ে ১০টি অস্ত্র, অস্ত্র তৈরির সরঞ্জামসহ তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

আটককৃতরা হলো- কুতুপালং ক্যাম্প সি-১ জি ব্লকের মৃত আজিজুর রহমানের ছেলে বাইতুল্লাহ (১৯) ও হাবিব উল্লাহ (৩২) এবং জাহিদ হোসেনের ছেলে মোহাম্মদ হাছান (২৪)।

কক্সবাজার র‌্যাব-১৫ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) মো. আবু সালাম চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১৫ কুতুপালং এলাকার দুর্গম পাহাড়ে অভিযান শুরু করে। সেখানে সন্ত্রাসীরা আস্তানা গেড়েছিল। সন্ত্রাসীরা র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে আক্রমণ করলে র‌্যাবও আত্মরক্ষার্থে গুলি ছুড়ে। এ সময় ৩ জনকে আহত অবস্থায় আটক করা হয়।

র‍্যাব-১৫ অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল খায়েরুল ইসলাম বলেন, দীর্ঘদিন ধরে একটি চক্র এ কারখানা তৈরি করে অস্ত্র বানিয়ে আসছিলেন। এখান থেকে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের কাছে অস্ত্র সরবরাহ করা হয়। পরে গোয়েন্দা নজরদারি বাড়িয়ে কারখানাটি শনাক্ত করে কারখানাটি নিয়ন্ত্রণে নেওয়া হয়। সেখান থেকে পাঁচটি পিস্তল, পাঁচটি বন্দুক ও বিপুল পরিমাণ অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম জব্দ করা হয়।

তিনি আরও জানান, ক্যাম্পগুলোতে সন্ত্রাসীদের তৎপরতা ঠেকাতে কাজ করছে র‍্যাব। আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ শেষে তাদের উখিয়া থানায় হস্তান্তর করা হবে।

আপনার মন্তব্য দিন