কক্সবাজারে মাদকাসক্ত স্বামীর উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে গৃহবধূর মৃত্যু

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন।।

কক্সবাজারের রামু রশিদনগরে মাদকাসক্ত স্বামীর ১১টি ছুরিকাঘাতে একগৃহ বধূর মৃত্যু হয়েছে।

৩১ ডিসেম্বর ভোর ৫টার দিকে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে। গত ২৮ ডিসেম্বর বিকাল ৩টায় শ্বশুর বাড়িতেই স্বামীর হাতে ছুরিকাহত হন গৃহবধূ ছালেহা আক্তার। ঘাতক স্বামীকে গ্রেফতার করেছে রামু থানা পুলিশ।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, কক্সবাজার সদরের চৌফলদন্ডী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড খামারপাড়া এলাকার আবুল কালামের মেয়ে ছালেহা আক্তারের সাথে পাশ্ববর্তী রামু উপজেলার রশিদ নগর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড তলিয়াঘোনা এলাকার মৃত নুর আহম্মেদের ছেলে মো. নবীর সাথে গত ১ বছর ১৯দিন আগে বিয়ে হয়।
বিয়ের পর থেকে মাূকাসক্ত স্বামী মো.নবীর হাতে বার বার নির্যাতনের শিকার হয়ে আসছিল।
এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৮ ডিসেম্বর বিকাল ৩টার দিকে তলিয়াঘোনা স্বামীর বাড়িতে মাদকাসক্ত স্বামী মো.নবী ধারালো ছুরি দিয়ে গৃহবধূ ছালেহার আক্তারের শরীরে ১১টি ছুরিকাঘাত করেন। গুরুতর আহত ছালেহা আক্তারকে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
ঘটনার পরপরই এলাকাবাসীর সহযোগীতায় মাদকাসক্ত নবী হোসনকে আটক করেছে।
এদিকে, ছুরিকাহত গৃহবধূ ছালেহা আকতার জেলা সদর হাসপাতাল বেডে মৃত্যুর সাথে লড়ার পর বৃহস্পতিবার ৩১ ডিসেম্বর ভোর ৫টার দিকে মৃত্যুর কাছে হেরে যান।
নিহত ছালেহার ভাই ওমর ফারুক বলেন, তার ভগ্নিপতি মো. নবী প্রায় সময় বোনকে নির্যাতন করত। ঘটনারদিনও তার একভাই বোনকে দেখতে গিয়ে ছিলেন। কিন্তু সেখানে এই ঘটনাটি দেখতে পান।
তিনি আরও জানান, ঘটনার পরপরই এলাকাবাসীর সহযোগীতায় তার ভগ্নিপতি ঘাতক মো.নবীকে আটক করেছে রামু থানা পুলিশ।
কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, জেলা সদর হাসপাতাল থেকে গৃহবধুর মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য দিন