চকরিয়ায় ফুসলিয়ে মুদির দোকানে নিয়ে শিশুকে ধর্ষণ: অভিযুক্ত আটক

ফাইল ছবি

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া

চকরিয়া উপজেলার পৌরসভা এলাকায় ফুসলিয়ে মুদির দোকানে নিয়ে গিয়ে নয় বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার সকালে পৌরসভার পুকপুকুরিয়া গোলাম কাদের সড়কের ভেন্ডিবাজার এলাকায় এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযোগ পেয়ে পুলিশ ঘটনার দিন রাতেই ধর্ষণে অভিযুক্ত মুদির দোকানদার বশির আহমদকে (৪৮) আটক করেছে পুলিশ।

আটক ব্যক্তির বাড়ি চকরিয়া পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের পালাকাটার মোহাম্মদিয়াপাড়া গ্রামে। তিনি ওই এলাকার অলি মিয়ার ছেলে। পুলিশ জানিয়েছে, অসুস্থ ওই শিশুকে জেলা সদর হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে।

চকরিয়া পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার সকালে শিশুটি মাদ্রাসায় যাচ্ছিলেন। এসময় শিশুটিকে রাস্তায় একা পেয়ে ফুসলিয়ে দোকানে নিয়ে ধর্ষণ করে। শিশুটি তখন মাদ্রাসায় না গিয়ে বাড়িতে ফিরে যায়। বিষয়টি তার মা—বাবাকে জানায়। পরবতীর্তে মঙ্গলবার রাতে শিশুটির বাবা থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। এরপর অভিযুক্ত মুদির দোকানীকে আটক করে পুলিশ।
চকরিযা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, ‘ধর্ষণে অভিযুক্তকে আটক করা হয়েছে। তাকে গতকাল বুধবার বিকেলে আদালতে পাঠানো হয়েছে। শিশুটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের পাঠানো হয়েছে। 

আপনার মন্তব্য দিন