টানা বৃষ্টিতে পাহাড়ি ঢলে পেকুয়ার বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত, তীব্র পানিতে মূল সড়ক ভেঙে  ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত, সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন 

এম.জুবাইদ, প্রতিনিধি.পেকুয়া(কক্সবাজার) 
টানা বৃষ্টিতে পাহাড়ি ঢলে কক্সবাজারের পেকুয়ার বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হয়েছে। এমনকি তীব্র পানিতে মূল সড়ক ভেঙে গিয়ে ব্যাপকভাবে  ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। 
খোঁজ নিয়ে জানা যায়,  উপজেলার টৈটং ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড বীর মুক্তিযোদ্ধা রমিজ উদ্দিন আহমদ সড়কে মাঝের পাড়া স্থানে পাহাড়ি ছড়ার তীব্র পানিতে মূল সড়ক ভেঙে  ব্যাপকভাবে  ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ফলে মাঝের পাড়া,  রমিজ পাড়া, ডালামূখ, হারকিল্লার ধাঁরা, নতুন পাড়ার  সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এলাকাবাসি সহ স্থানীয় ভারপ্রাপ্ত  চেয়ারম্যান-হাজী সাহাব উদ্দীন জানান, এই রাস্তা দিয়ে প্রায় ১২-১৫ হাজার লোক চলাচল  করেন।  তাদের যেন দূর্ভোগ পোহাতে না হয় স্থানীয় চেয়ারম্যান  সহ দ্রুত ব্যবস্থা নিবেন বলে আশাস্ত দেন এলাকাবাসিকে। এছাড়াও টৈটং ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ড, শিয়ার আলী মাস্টার পাড়া, আরব শাহ বাজার সড়ক  সহ পুরো পশ্চিম টৈটং ও টৈটং সীমান্ত ব্রীজ থেকে বটতলী হয়ে হারবাং ভিলিজার পাড়া সড়কের টৈটং এলাকায় বন্যার পানি ৫ ফুট বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত এবং ব্যাপক এলাকা প্লাবিত হয়েছে।
এদিকে টানা ৩ দিনের বৃষ্টিতে পাহাড়ি ঢলে উপজেলার শীলখালী ইউনিয়নের শীলখালীর চেপ্টামুড়া, মুন্সীমুড়া, শীলখালী স্কুল স্টেশন, জারুলবুনিয়াসহ  বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হয়েছে। এমনকি রাস্তার উপর পানি পারাপার করছে। একদিকে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে মানুষ দিশেহারা আবার টানা বৃষ্টিতে পাহাড়ী ঢলেই প্লাবিত হয়ে মানুষ গৃহবন্দী। এসব এলাকা পরিদর্শন করেছেন উপজেলা সহকারী কমিশনার ( ভূমি)  মীকি মারমা।
এ সময় তিনি জানিয়েছেন, টইটং বীর মুক্তিযোদ্ধা রমিজ উদ্দিন আহমদ সড়কে মাঝের পাড়া স্থানে পাহাড়ি ছড়ার তীব্র পানিতে মূল সড়ক ভেঙে গিয়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।  তাই ওই এলাকার লোকজনের চলাচলের সুবিধার্থে একটি বিকল্প যোগাযোগের ব্যবস্থা করে দেওয়ার জন্য উপজেলা এল জি ডি কে নিদের্শ দেওয়া হয়েছে।   
আপনার মন্তব্য দিন