টেকনাফে চাঞ্চল্যকর আব্দুর রহমান হত্যা মামলার অন্যতম আসামী শওকত আটক

টেকনাফে চাঞ্চল্যকর আব্দুর রহমান হত্যা মামলার অন্যতম আসামী শওকত আটক

নিউজ কক্সবাজার ডেস্ক।

টেকনাফের নয়াপাড়ার চাঞ্চল্যকর বিকাশ এজেন্ট আব্দুর রহমান হত্যা মামলার অন্যতম আসামী শওকতকে আটক করেছে র‍্যাব। নিহতের ভাই বাদী হয়ে গতকাল টেকনাফ মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়েরের ৪৮ ঘন্টার মধ্যে শওকতকে আটক করা হল। যার মামলা নং-৪৩/৯৩৫।

মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর) রাতে র‍্যাবের একটি চৌকস দল গোয়েন্দো নজরদারি ও তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় শওকতকে আটক করে টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করেছে।

আটক শওকত আলম দায়েরকৃত মামলার ৭ নং আসামি। এবং সাবরাং দক্ষিন নোয়াপাড়ার মৃত আলী আকবরের ছেলে।

মামলার অন্যান্য আসামিরা হলোঃ নুর আহমদের ছেলে হাবিবুল্লাহ (৩৭), মৃত মো. আবদুল্লাহ’র ছেলে আলমগীর ফয়সাল লিটন (৩৪), ফিরোজ আহমদের ছেলে বোরহান উদ্দিন জিয়া (২৫), ইব্রাহিম খলিলের ছেলে মো. ইছহাক (২৪), মকতুল আহমদের ছেলে করিম উল্লাহ (৩২), বশির আহামদ ড্রাইভারের ছেলে নাছির উদ্দিন (২৮) ও আবদুল গফুরের ছেলে সালামতুল্লাহ (২৬)।

র‍্যাব জানায়, মৃত আব্দুর রহমানের বিকাশ ও নগদ এজেন্টের ব্যবসা ছিল। পেশাগত কারণে ভিকটিম অনেক রাত পর্যন্ত বাইরে থাকতো। টাকা পয়সাসহ অনেক ব্যাপারে ভিকটিমের সাথে আসামীদের পূর্ববিরোধ চলে আসছিল। গত ১৭ অক্টোবর ২০২২ তারিখে আনুমানিক রাত ০১ টা থেকে ভোর ৫ ঘটিকার মধ্যে এজাহারনামীয় আসামীরা পরস্পর যোগসাজশে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে আব্দুর রহমানকে নৃশংসভাবে হত্যা করে এবং তার চেহারা বিকৃত করে দেওয়ার জন্য তার মুখ পাথর ও টর্চলাইট দিয়ে থেতলে দেয়। পরে আসামীরা উক্ত স্থানে লাশ ফেলে চলে যায়। এই পাশবিক ও নৃশংস হত্যাকান্ডের ঘটনা বিভিন্ন পত্র পত্রিকা ও মিডিয়ায় প্রকাশিত হলে টেকনাফসহ সারা দেশে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়।

Related Articles