টেকনাফে মেম্বারের ইন্ধনে আসামী ছিনিয়ে নিতে পুলিশের উপর হামলা: নিহত ১

বিশেষ প্রতিনিধি।

কক্সবাজারের টেকনাফে অর্ধ ডজনের বেশী মাদক মামলার আসামী শামশুকে ছিনিয়ে নিতে পুলিশের উপর শসস্ত্র হামলায় আহত হয়েছে পুলিশের ৩ সদস্য। এসময় গুলিতে এক যুবকের প্রাণহানি ঘটেছে।

মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারী) রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের মিঠাপানির ছড়া মাদ্রাসার সামনে এই ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে টেকনাফ থানার (ওসি) হাফিজুর রহমান।

নিহত যুবক সদর ইউনিয়নের মিঠাপানির ছড়া এলাকার গোলাম হোসেনের ছেলে খুরশেদ আলম (২০) ও মাদককারবারী শামশুর ছোট ভাই।

ওসি জানান, সদর ইউনিয়নের মিঠাপানির ছড়া এলাকার হাজী গোলাম হোসেনের ছেলে চিহ্নিত ইয়াবা কারবারী শামশু আলম অর্ধ ডজনের বেশী মামলার পলাতক আসামী। মঙ্গলবার রাত সোয়া ১০টার দিকে পুলিশ সদস্যরা দরগার ছড়া ফুটবল খেলার থেকে শামশুকে আটক করে। সিএনজিতে (অটো) করে থানায় নেয়ার পথে, মিঠাপানির ছড়া মাদ্রাসার সামনে পৌছালে খোরশেদের নেতৃত্বে বেশ কিছু লোক সশস্ত্র অবস্থায় পুলিশের উপর হামলা চালায়। হামলাকারীদের দা’র কুপে পুলিশের তিন সদস্য ও সিএনজি ক্ষতিগ্রস্থ হয়। এসময় গুলিতে শামশুর সহোদর খুরশেদ গুলিবিদ্ধ হলেও অভিযানিক দলটি আসামীকে নিয়ে প্রাণ বাঁচিয়ে ঘটনা স্থল ত্যাগ করে।

এদিকে ঘটনার সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল ও হাসপাতাল পরিদর্শন করেন জেলা পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান ও সহকারী পুলিশ সুপার (উখিয়া-টেকনাফ সার্কেল) শাকিল আহমেদ।

নিহতের ভাই নুরুল আলম জানান, রাতে শামশুকে রাজার ছড়া ফুটবল খেলার মাঠ থেকে অপহরণ করে নিয়ে যাচ্ছে বলে ফোনে সংবাদ আসে। ফোন পেয়ে এলাকাবাসীর সহযোগীতায় মিঠাপানির ছড়া মাদ্রাসার সামনে সিএনজিটি গতিরোধ করলে সিএনজির ভিতর থেকে গুলি ছুঁড়ে। এতে খুরশেদ গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটে পড়ে। ঘটনা স্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

টেকনাফ সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ইস্কান্দর মির্জা জানান, গুলিবিদ্ধ খুরশেদ হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে স্থানীয় একটি নির্ভর‍্যোগ্য সূত্র জানিয়েছে, শামশুর চাচাত ভাই একই এলাকার ওমর হাকিম মেম্বার ও স্থানীয় দুই চিহ্নিত ব্যক্তি মিলে অপহরণকারী বলে গুজব তুলে পরিকল্পিত ভাবে পুলিশের উপর হামলা চালিয়ে আসামী ছিনিয়ে নেয়ার ইন্ধন যোগায়।

এই ঘটনায় তদন্ত সাপেক্ষে আইনী প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে বলে জানিয়েছেন টেকনাফ থানা পুলিশের এই কর্মকর্তা।

আপনার মন্তব্য দিন