টেকনাফে স্ত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা

ফয়সাল আজিম, স্টাফ রিপোর্টার।। 

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার হ্নীলায় রাখাইন সম্প্রদায়ের এক ব্যক্তির ছুরিকাঘাতে চ‌খিং ওয়ান (৩৯) নামে একজন গৃহবধূ খুন হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত স্বামী উ ক‌্য ওয়ানকে (৪৮) আটক করেছে পুলিশ। আটক ব্যক্তি মিয়ানমারের রাশি ডং এলাকার অং চিন জু’র ছেলে। নিহত গৃহবধূ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের চৌধুরী পাড়ার বাসিন্দা মৃত উ সিং ক‌্য’য়ের মেয়ে। নিহত গৃহবধূর সংসারের তিন ছেলেসন্তান রয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়দের ধারণা, পারিবারিক কলহের জের ধরে এ ঘটনা ঘটতে পারে। বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) দুপুর আড়াইটার দিকে টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের চৌধুরীপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্র জানায়, পারিবারিক কলহের জেরে তাদের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া বিবাদ হতো। বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটার দিকে স্বামী  উ ক‌্য ওয়ানের সঙ্গে কথাকাটাকাটির জেরে চ‌খিংওয়ানকে একাধিক ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয় লোকজন ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।
এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক রোমানা রশিদ বলেন, বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টার দিকে মৃত অবস্থায় একজন নারীকে হাসপাতালে আনা হয়। তার শরীরে একাধিক ছুরিকাঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে।
পরে টেকনাফ মডেল থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল হ্নীলার পানখালী এলাকা থেকে অভিযুক্ত স্বামী উ ক‌্য ওয়ানকে আটক করে।
এ বিষয়ে টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান বলেন, ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে স্বামীকে আটক করা হয়েছে। লাশটি উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়াধীন এবং মামলার প্রস্তুতি চলছে।
এ বিষয়ে টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান বলেন, ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে স্বামীকে আটক করা হয়েছে। লাশটি উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়াধীন এবং মামলার প্রস্তুতি চলছে।
আপনার মন্তব্য দিন