পর্যটন জাহাজ কর্ণফুলীর আগমনে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে পেয়েছে সেন্টমার্টিন দ্বীপ

পর্যটন জাহাজ কর্ণফুলীর আগমনে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে পেয়েছে সেন্টমার্টিন দ্বীপ
হাবিব খান
আজ ৭০০ সাত শত পর্যটক নিয়ে কর্ণফুলী এক্সপ্রেস সেন্টমার্টিন দ্বীপে আগমন করেছেন।দীর্ঘদিন ধরে সেন্টমার্টিন দ্বীপে পর্যটক না থাকায় ব্যবসা বানিজ্যের চরম মন্দা যাচ্ছিলো, আজ দ্বীপের প্রায় ব্যবসায়ীর মুখে হাসি ফুটে উঠেছে। তবে অন্যদিকে হতাশার চাপ লেগেই আছে কারন টেকনাফ রোড থেকে জাহাজ চলাচল বন্ধ থাকায়। বিশেষ করে লোকাল পর্যটন ব্যবসায়ীরা চরম কস্টে আছে টেকনাফ থেকে জাহাজ না আসায়।পর্যটক সংখ্যা কম হলে লোকাল ব্যবসায়ীদের কটেজ খুব একটা ভাড়া হয়না।কারন স্হানীয়দের এই ব্যবসার নেটওয়ার্ক তেমন নাই বললেই চলে, আর যারা কক্সবাজার চট্টগ্রাম থেকে আসে তারা সবাই ভিআইপি পারসন দামী হোটেল মোটেল ছাড়া অন্য হোটেলে উঠতে চাইনা।টেকনাফ থেকে আসতে পারলে মেডিয়াম ক্যাটাগরির পর্যটকদের আসতে সুবিধা হয় তাতে স্হানীয়দের কটেজগুলো মোটামুটি চলে। প্রশাসনের কাছে জোর আবেদন প্রয়োজনীয় ব্যবস্হা গ্রহনের মাধ্যমে টেকনাফ সেন্টমা্রটিন নৌরোডটি চালু করার বিনীত অনুরোধ ও দাবী জানাচ্ছি।
দ্বীপবাসীর এখন একমাত্র ইনকাম সোর্স হচ্ছে পর্যটন ব্যবসা মাত্র তিন মাস ইনকাম করে আটমাস বসে থেকে খেতে হয়, দ্বীপে আর তেমন কোন ব্যবসা বানিজ্য নাই বললেই চলে।আল্লাহ ভরসা।আল্লাহ তুমি দ্বীপের অসহায় মানুষের রিজিকের ব্যবস্হা করে দিও যেভাবেই হউক।

Related Articles