পেকুয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় নারীসহ আহত ২

পেকুয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি

কক্সবাজারের পেকুয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় পিতা ও মেয়েসহ ২ জন আহত হয়েছেন। আহতদেরকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। জমিজমার বিরোধ নিয়ে প্রতিপক্ষের লোকজন এ হামলা চালায়।

বুধবার (২ জুন) সকাল ৮ টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের আন্নরআলী মাতবরপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন ওই এলাকার মৃত ছৈয়দ আহমদের পুত্র শাহ আলম (৭০), মেয়ে রুবি আক্তার (৩৫)।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বসতভিটার জায়গা নিয়ে মাতবরপাড়ায় শাহ আলম ও তার আপন সহোদর নুরুল আলমের মধ্যে বিরোধ চলছিল। মৃত ছৈয়দ আহমদের বসতভিটার পৈত্রিক অংশ বিভাজন নিয়ে ওয়ারিশদের মধ্যে দ্বন্দ্বের সূত্রপাত হয়েছে।

মৃত ছৈয়দ আহমদের প্রতিজন ছেলে বসতভিটা থেকে ২৭ কড়া করে সম্পত্তি প্রাপ্ত হন। তবে শাহ আলমকে বসতভিটার জায়গা থেকে কিছু অংশ বঞ্চিত করে। শাহ আলমের ভাই নুরুল আলম প্রাপ্ত অংশের চেয়ে অধিক জায়গা ভোগ দখলে রাখে।

এ ছাড়াও শাহ আলমের দুই ছেলে সৌদি প্রবাসী মোহাম্মদ কালু ও মোর্শেদ বসতভিটার অংশ থেকে ১১ কড়া জায়গা রেজিস্ট্রি নেন। খরিদ অংশ ও পৈত্রিক অংশ বুঝে পাওয়া নিয়ে বাকবিতণ্ডা হয়েছে। এর সূত্র ধরে নুরুল আলমের পক্ষে তার ছেলে মো. শওকত, হারুণ, আরাফাত ও মঈন উদ্দিনের স্ত্রী বুলবুলসহ ৫/৬ জনের দুর্বৃত্তরা হামলা চালিয়ে শাহ আলম ও মেয়ে রুবি আক্তারকে আহত করে।

প্রত্যক্ষদর্শী দিলোয়ারা বেগম ও ইয়াসমিন আক্তার জানান, আমরা বসতভিটায় শাক সবজি আবাদ করেছি। সকালে বসতভিটায় রক্ষণাবেক্ষণ ও পরিচর্যার সময় নুরুল আলমের ছেলে শওকত, হারুণ, আরফাত এসে হামলা শুরু করে। তারা ধারালো দা ও লাঠিসোটা নিয়ে শাহ আলম ও মেয়ে রুবি আক্তারকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে আহত করে। এসময় সীমানা পিলার গুলি উপড়ে ফেলেছে।

পেকুয়া থানার ওসি সাইফুর রহমান মজুমদার জানান, অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার মন্তব্য দিন