সোমবার, ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
Homeউখিয়াবদি শিবিরের জয়ের হাসি, বশর শিবিরে হতাশার গ্লানি 

বদি শিবিরের জয়ের হাসি, বশর শিবিরে হতাশার গ্লানি 

শাহ্‌ মুহাম্মদ রুবেল

গত রবিবার দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। কক্সবাজার ৪ ( উখিয়া-টেকনাফ) সংসদীয় আসনে নৌকার মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য শাহীন আক্তার তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী নুরুল বশরকে ( ঈগল প্রতীক)  বিপুল ভোটে পরাজিত করে দ্বিতীয়বারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছে। এই নিয়ে বদি শিবিরে বিরাজ করছে জয়ের হাসি আর বশর শিবিরে হতাশার গ্লানি। 

রোহিঙ্গা ইস্যু ও মাদক চোরাচালান ইত্যাদি বিষয় নিয়ে জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে কক্সবাজার ৪ সংসদীয় আসনটি অতীব গুরুত্বপুর্ণ। শুরু থেকে এই আসনটি নিয়ে আলোচলা ও সমালোচনা দেখা গেছে চায়ের দোকান থেকে শুরু করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। কে হচ্ছেন উখিয়া-টেকনাফের আগামি ৫ বছরের অভিবাবক? অবশেষে, সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে জয়লাভ করেছেন বদিপত্নী শাহীন আক্তার। 

নির্বাচনের শুরু থেকে উখিয়া-টেকনাফের ভোটাররা দুই শিবিরে বিভক্ত ছিল। নৌকার প্রার্থী শাহীন আক্তার হলেও আব্দুর রহমান বদি ও নুরুল বশরের মধ্যে ছিল মূল লড়াই। উখিয়া-টেকনাফের রাজনীতিতেও দেখা গেছে দিধাবিভক্ত অবস্থান। 

টেকনাফ ও উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের একাংশ নুরুল বশরের পক্ষে প্রচার প্রচারণা চালালেও বেশিরভার নেতা কর্মী শাহীন আক্তারের পক্ষে কাজ করেছেন। যুবলীগ ও ছাত্রলীগের মধ্যে ও দিধাবিভক্ত অবস্থান দেখা গেছে। টেকনাফ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব মোর্শেদ ও জেলা আওয়ামীলীগ নেতা রাজা শাহ্‌ আলম নুরুল বশরের পক্ষে নির্বাচন করেছেন। অপরদিকে, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলম বাহাদুর, ইউনুছ বাঙ্গালী ও সোহেল আহমেদ বাহাদুর শাহীন আক্তারের পক্ষে নির্বাচন করতে দেখা গেছে। টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ও দিধাবিভক্ত অবস্থান নিয়ে নির্বাচন করছেন। সভাপতি সাইফুল ইসলাম মুন্না নুরুল বশরের পক্ষে ও সাধারণ সম্পাদক নুরুল মোস্তফা শাহীন আক্তারের পক্ষে নির্বাচন করছেন। 

কক্সবাজার ৪ ( উখিয়া-টেকনাফ) নির্বাচন নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ও দুই শিবিরে পাল্টাপাল্টি কথার লড়াই ছিল দেখার মত। কেউ মিলাচ্ছে গত পাঁচ বছরের প্রাপ্তি অপ্রাপ্তির হিসাব নিকাশ। আর কেউ দেখাচ্ছে উন্নয়নের ফিরিস্তি। 

কিন্থু সব হিসাব নিকাশ পাল্টে যায় ভোটের পরে। বশর শিবিরের অনেকে তাদের পুরনো ফেসবুক পোষ্ট মুছে ফেলেছে। আর এসব নিয়ে হাসছে বদি শিবিরের লোকজন। 

সারা দিন ধরে সুষ্ঠু পরিবেশে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হলেও শেষ মুহুর্তে নুরুল বশরের ভোট বর্জনের ঘোষণা নানা সমালোচনা তৈরি করেছে। স্থানীয় ভোটাররা বলছেন, নিশ্চিত পরাজয় জেনে হয়তো তিনি নির্বাচন বর্জন করতে পারেন। কারণ সারাদিন ব্যাপী সুষ্ঠু পরিবেশে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অন্যদিকে, নৌকার প্রার্থী শাহীন আক্তার জয়লাভ করে উখিয়া-টেকনাফের জনগনকে ধন্যবাদ জানিয়ে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments