বনকর্মীর ধাওয়া খেয়ে নদীতে ঝাঁপ, নারীর মৃত্যু

মহেশখালী প্রতিনিধি

কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলায় লাকড়ি কুড়াতে গিয়ে বিট কমকর্তাদের ধাওয়া খেয়ে নদীতে ডুবে খুকি দে (৪৫) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আরও একজনকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা।

শনিবার (২৬ জুন) দুপুরে আদিনাথ জেটি সংলগ্ন প্যারাবনে এ ঘটনা ঘটে। নিহত খুকি ছোট মহেশখালী ঠাকুরতলা এলাকার বাদল দে’র স্ত্রী।

নিহত নারীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, শনিবার সকালে ছোট মহেশখালীর আদিনাথ জেটি সংলগ্ন প্যারাবনে লাকড়ি কুড়াতে যান সাতজন নারী। এ সময় উপকূলীয় বনবিভাগের সদর বিটের সদস্যরা ওই নারীদের ধাওয়া করে। একপর্যায়ে খুকি ও শিপ্রা প্যারাবন সংলগ্ন নদীতে ঝাঁপ দেয়। বাকি নারীরা বাড়িতে ফিরে স্বজনদের খবর দিলে স্বজনরা গিয়ে খুকির মরদেহ উদ্ধার করে নিয়ে মহেশখালী থানায় নিয়ে আসে। শিপ্রাকে মুমূর্ষু অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠান।

নিহতের স্বজনেরা দাবি করেন, প্যারাবনের অভ্যন্তরে লাকড়ি কুড়াতে গেলে বন বিভাগের সদস্যরা তাদের কাছ থেকে চাঁদা দাবি করত। না দিলে তাদের লাকড়ি কেড়ে নিতো। ঘটনার দিন তারা চাঁদার টাকা দিতে না পারায় বন বিভাগের সদস্যরা তাদের ধাওয়া করে। একপর্যায়ে খুকি ও শিপ্রা নদীতে ঝাঁপ দেয়। এতে পানিতে ডুবে খুকির মৃত্যু হয়। অপরদিকে পুলিশ খবর পেয়ে অভিযুক্ত বন বিভাগের তিন সদস্যকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন থানার পরিদর্শক (এসআই) মনিষ বড়ুয়া।

মহেশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল হাই বলেন, নিহত নারীর পরিবারের সদস্যদের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার মন্তব্য দিন