বিজিবির সঙ্গে মাদককারবারীদের গোলাগুলি, ৩ কোটি টাকার ইয়াবা উদ্ধার

শাহ্‌ মুহাম্মদ রুবেল
সম্পাদক
নিউজ কক্সবাজার ডটকম

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের ঝিমংখালী এলাকায় বিজিবির সাথে ইয়াবা কারবারীদের বন্ধুকযুদ্ধে এক ইয়াবা কারবারী নিহত হয়েছে। এসময় আহত হয়েছে বিজবির দুই সদস্য। ঘটনাস্থল থেকে ১ লাখ পিস ইয়াবা, ১ টি দেশীয় তৈরি অস্ত্র ও ১টি কার্তুজের খালী খোসা উদ্ধার করা হয়েছে।

রবিবার (১৪ নভেম্বর) রাত দেড়টার দিকে ইউনিয়নের ঝিমংখালী সংলগ্ন নাফনদীর তীরে বন্ধুকযুদ্ধের এই ঘটনা ঘটে বলে সংবাদ সম্মেলনের জানিয়েছে ২ বিজিবি অধিনায়ক লেঃকর্ণেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খাঁন। তবে নিহত ব্যক্তির কোন ধরণের তথ্য উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি বলেও জানান তিনি।

২ বিজিবি অধিনায়ক বলেন, গোপন সংবাদে জানতে পারেন যে, মিয়ানমার হয়ে একটি ইয়াবার বড় চালান নাফ নদী হয়ে প্রবেশ করবে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবি সদস্যদের একটি বিশেষ দল নাফনদীর তীরে কৌশলে অবস্থান নেয়। কিছুক্ষণ পরে তিনজন আরোহী নিয়ে একটি নৌকা মিয়ানমার হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে থাকে। এমন সময় বিজিবি অগ্রসর হয়ে তাদের থামানোর সংকেত দিলেই মাত্র চোরকারবারী গুলি ছুঁড়ে। বিজিবিও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়।

বিজিবির সমন্বিত গুলি বর্ষণে এক মাদককারবারী গুলিবিদ্ধ হয়। সেই সাথে অপর দুইজন সাঁতার কেটে গা ঢাকা দেয়। পরে তল্লাশি করে গুলিবিদ্ধ ব্যক্তিকে উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। নিহত ব্যক্তির বয়স আনুমানিক ২৫ বছর। তবে তার সাথে থাকা অপর দুইজন পালিয়ে যাওয়ায় নিহত ব্যক্তির পরিচয় সনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। উদ্ধারকৃত ইয়াবার বাজার মূল্য ৩ কোটি টাকা বলে জানায় বিজিবি।

সরকারি কাজে বাধা প্রদান ও মাদক পাচারের দায়ে অজ্ঞাত দোষীদের বিরুদ্ধে মাদক মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছে বলেও জানান ওই অধিনায়ক।

আপনার মন্তব্য দিন