ভাষা শহীদদের স্মরণে শ্রদ্ধাবনত জাতি

 

নিউজ কক্সবাজার ডেস্ক ।। ভাষা শহীদদের স্মরণে ২১শের প্রথম প্রহরে শ্রদ্ধা নিবেদন করছেন সর্বস্তরের মানুষ। তবে এবার মহামারির বাস্তবতায় ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদনের আয়োজনটি এবার হচ্ছে সীমিত পরিসরে।

রাত ১২টা ১ মিনিট মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। করোনার কারণে এবার রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী স্ব-শরীরে আসেননি। তাদের পক্ষে সামরিক সচিব মেজর জেনারেল এস এম সালাহউদ্দিন ইসলাম ও মেজর জেনারেল নকিব আহমদ চৌধুরী ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানের পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার পক্ষে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এ সময় দলের জ্যেষ্ঠ নেতা মতিয়া চৌধুরী, ফারুক খান, দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ তার সঙ্গে ছিলেন।
শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে ওবায়দুল কাদের বলেন, একুশের পথ ধরে স্বাধীনতা এসেছে। স্বাধীনতার এত বছর পরেও বলা যায় বিজয়কে সুসংহত করতে পারিনি আমরা। জীবনের সর্বস্তরে বাংলা ভাষার প্রচলন ঘটানো সম্ভব হয়নি। বর্তমান সরকার সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে। জাতিসংঘ বাংলা ভাষাকে দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে স্বীকৃতি দেবে, জাতির পক্ষে এই দাবি জানাচ্ছে আওয়ামী লীগ।
পরে জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর পক্ষে শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান সংসদের সার্জেন্ট অ্যাট আর্মস কমডোর এমএম নাঈম রহমান। এরপর সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ, নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল মোহাম্মদ শাহীন ইকবাল এবং বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পরে মন্ত্রিসভার সদস্য, বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও ছাত্র সংগঠন, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।
এরপর ১২টা ১৬ মিনিটের দিকে সর্ব-সাধারণের শ্রদ্ধা জানানোর জন্য শহীদ মিনার প্রাঙ্গণ উন্মুক্ত করা দেওয়া হয়।
আপনার মন্তব্য দিন