মিয়ানমার থেকে পাচারকালে প্রায় ৮ লাখ ইয়াবা জব্দ

শাহ্‌ মুহাম্মদ রুবেল

বাংলাদেশের সর্ব দক্ষিণের ইউনিয়ন  সেন্টমার্টিনের ছেড়াদ্বীপে অভিযান চালিয়ে ৭ লাখ ৮০ হাজার পিচ ইয়াবার একটি বিশাল চালান  জব্দ করেছে কোস্টগার্ড। তবে অভিযানে কাউকে আটক করা যায়নি। 

শুক্রবার (১২ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ছেড়াদ্বীপ সংলগ্ন সমুদ্র এলাকা হতে এসব ইয়াবা জব্দ করা হয়েছে বলে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড সদর দপ্তরের মিডিয়া কর্মকর্তা লেঃ খন্দকার মুুনিফ তকি (বিএন) গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায় মিয়ানমার হতে সেন্টমার্টিন ইউনিয়নের ছেড়াদ্বীপ সংলগ্ন এলাকা দিয়ে একটি ইয়াবার বড় চালান বাংলাদেশে প্রবেশ করবে। প্রাপ্ত সংবাদের ভিত্তিতে বিসিজি স্টেশন টেকনাফ স্টেশনের কমান্ডার লেঃ এম নাঈম উল হক এর নেতৃত্বে উক্ত এলাকায় একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযান চলাকালীন সময়ে একটি বোটকে সন্দেহজনক মনে হলে বোটটিকে কোস্টগার্ড সদস্যগণ থামার জন্য সংকেত দেয়। বোটটি কোস্টগার্ডের উপস্থিতি টের পেয়ে দ্রুত দিক পরিবর্তন করে পালিয়ে যেতে শুরু করলে কোস্টগার্ড সদস্যরা বোটটিকে ধাওয়া করে। এসময় ইয়াবা পাচারকারীদল ৪টি বাদামী রংয়ের বস্তা সমুদ্রে ফেলে দিয়ে মিয়ানমারের সীমান্তের দিকে পালিয়ে পার হতে দেখা যায়।

পরবর্তীতে কোস্টগার্ড সদস্যরা বস্তাগুলো তল্লাশি করে পরিত্যক্ত অবস্থায় ৭ লাখ ৮০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ করা হয়।

জব্দকৃত ইয়াবা পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান কোস্টগার্ড সদর দপ্তরের এই তথ্য কর্মকর্তা।

আপনার মন্তব্য দিন