মুহিবুল্লাহ হত্যার পর রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অভিযানে গ্রেপ্তার ৮৭

শাহ্‌ মুহাম্মদ রুবেল

রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ডের পর কক্সবাজারের শরণার্থী ক্যাম্পগুলোতে শুরু হওয়া বিশেষ অভিযানে ৮৭ জনকে গ্রেপ্তার করার কথা জানিয়েছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ান- ৮ (এপিবিএন)।

৮- এপিবিএন অধিনায়ক ও পুলিশ সুপার (এসপি) শিহাব কায়সার খান বুধবার রতে সাংবাদিকদের একথা জানান। 

তিনি এসময় বলেন, গত ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুর্বৃত্তদের বিরুদ্ধে বিশেষ অভিযানে এ পর্যন্ত ৮৭ জন সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত ৮৭ জনের মধ্যে ৬৬ জন হত্যা, ডাকাতিসহ বিভিন্ন প্রকার সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে জড়িত এবং বাকি ২১ জন মাদক সংশ্লিষ্ট অপরাধে জড়িত।

পুলিশ সুপার আরও বলেন, মাসব্যাপী পরিচালিত বিশেষ অভিযানে ১০ হাজার ৫১০ পীচ ইয়াবা ও ইয়াবা বিক্রির নগদ ৫ লাখ ৩৩ হাজার ৩০০ টাকা, ১টি আগ্নেয়াস্ত্র (ওয়ান শুটার গান), ৬ রাউন্ড গুলি, ৩৮ টি দেশীয় তৈরি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।  তাছাড়া বিপুল পরিমাণ ভেজাল ঔষধ, বিক্রয় নিষিদ্ধ চাল,ডাল,তেল সহ অন্যান্য দ্রব্যাদি উদ্ধার করা হয়। 

৮- এপিবিএন অধিনায়ক আরও বলেন, হত্যা সংক্রান্ত ২টি, অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধারে ১টি, ডাকাতির প্রস্তুতি সংক্রান্ত ৯টি, ইয়াবা উদ্ধারে ৬টি, জালিয়াতি সংক্রান্ত ১টি ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে ১টিসহ সর্বমোট ২০টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

শিহাব কায়সার খান বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পের দুর্বৃত্তদের বিরুদ্ধে অভিযান চলবে। আমরা চাই সাধারণ রোহিঙ্গারা ভালো থাকুক। তথাকথিত দুর্বৃত্ত গ্রুপের নাম করে কাউকে সন্ত্রাসী কার্যকলাপ করতে দেওয়া হবে না। আমাদের দেশে অন্য দেশের দুর্বৃত্তদের কোন স্থান নেই। এ সময় রোহিঙ্গা ক্যাম্পের তথাকথিত দুর্বৃত্তদের উদ্দেশ্যে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।

আপনার মন্তব্য দিন