যৌন হেনস্থার শিকার হয়েছেন বলিউডের এসব নায়িকাও

কাশ্মিরি তারকা জায়রা ওয়াসিমের বিমানে শ্লীলতাহানির খবর আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। তবে ভারতে এ ধরনের পরিস্থিতিতে তিনিই প্রথম নন। এর আগে অনেক বলিউড অভিনেত্রীকেই পড়তে হয়েছে এই পরিস্থিতিতে। কখনো মুখোমুখি হতে হয়েছে নানা নোংরা মন্তব্যের। কখনো–‌বা শিকার হতে হয়েছে শ্লীলতাহানির।

২০১০–‌এর ঘটনা। ‘‌তিস মার খান’‌ ছবির প্রচারে একটি অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন অক্ষয়কুমার ও ক্যাটরিনা কাইফ। ক্যাটরিনাকে দেখতে লোকজন প্রায় ক্যাটরিনার ওপর ঝুঁকে পড়ছিলেন। তাঁকে ছোঁয়ার জন্য শুরু হয়ে যায় হুলস্থুল। সে–‌সময় কেউ কেউ তার গায়ে হাত দেন বলেও অভিযোগ। অক্ষয়কুমার ক্যাটরিনাকে সেখান থেকে সরিয়ে নিয়ে যান। ওই ঘটনার আগে, ২০০৫ সালে কলকাতায় দুর্গাপুজোর উদ্বোধনে গিয়ে এ–‌রকমই আপত্তিকর অবস্থার শিকার হন ক্যাট।

অন্য দিকে, বছর কয়েক আগে ভিড়ে ঠাসা একটি অনুষ্ঠানে দীপিকা পাড়ুকোনের সঙ্গেও ঘটে এমনই জঘন্য ঘটনা। ভিড়ের মধ্যে থেকে কিছু লোক দীপিকাকে অশালীনভাবে স্পর্শ করতে থাকেন। যদিও নিরাপত্তারক্ষীদের সাহায্যে সেখান থেকে বেরিয়ে যেতে পেরেছিলেন দীপিকা।

কারিনা কাপুরের সঙ্গে একই রকম ঘটনা ঘটে ‘‌বজরঙ্গী ভাইজান’‌–‌এর প্রচারের সময়। সেই হিসেবে খুব বেশি দিনের ঘটনা নয়। এবং সে–‌ঘটনা চূড়ান্ত আপত্তিজনক জায়গায় পৌঁছে যায়। মাথা ঠান্ডা রাখার প্রাণপণ চেষ্টা চালিয়ে গিয়েছিলেন কারিনা। অবস্থা বেগতিক দেখে তাকে ওই জায়গা থেকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। সুস্মিতা সেনের সঙ্গেও এ–‌রকম অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে পুনের এক অনুষ্ঠানে। তাকে দেখতে–‌আসা লোকজনের মধ্যে কেউ কেউ তার উদ্দেশে কুরুচিকর মন্তব্য ছুঁড়তে থাকে। আতঙ্কিত হয়ে পড়েন প্রাক্তন বিশ্বসুন্দরী। ‘

‌রঞ্ঝনা’‌ ছবির প্রোমোশনে সোনম কাপুরকেও সইতে হয়েছে অনভিপ্রেত ঘটনা। নিরাপত্তারক্ষী থাকলেও সোনমকে অশালীনভাবে ছোঁয়ার অভিযোগ ওঠে কয়েকজনের বিরুদ্ধে।

অক্ষয়কুমারের সঙ্গে একটি ছবির প্রচারে আজমেঢ় দরগায় গিয়েছিলেন সোনাক্ষী সিন্‌হা। তখন সোনাক্ষীকেও জঘন্য ভাবে লোকজনের অসভ্যতা সহ্য করতে হয়েছিল। শুনতে হয়েছিল নোংরা কথাবার্তা।

ইমরান হাসমির তৎপরতায় ‘‌আজহার’ ছবির শুটিংয়ের সময় সম্মানরক্ষা হয় নার্গিস ফাকরির। ফ্লোরে শুটিং দেখতে–‌আসা লোকজন শালীনতার মাত্রা ছাড়িয়ে কথাবার্তা শুরু করেন নার্গিসকে লক্ষ্য করে। ঘটনার আকস্মিকতায় কার্যত অবাক, বিহ্বল হয়ে পড়েন ফাকরি।

আপনার মন্তব্য দিন