রামুতে জবরদখলকৃত বনভুমি উদ্ধার করলো বাঘখালী রেঞ্জ

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন।।

কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বাঘখালী রেঞ্জাধীন বাঘখালী বিটের বনভুমি অবৈধ দখলদারদের বিরুদ্ধে উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছে বনবিভাগ।

বৃহস্পতিবার সকালে কাউয়ারখোপ পাতা খোলা এলাকায় এ উদ্ধার অভিযান চালায় বাকখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা একে এম আতা এলাহী ও তার সঙ্গীয় ফোর্স।

এসময় বনখেকোদের হামলায় কয়েকজন বনকর্মী আহত হন। এঘটনায় রামু থানায় মামলাও দায়ের করা হয়েছে।

জানা গেছে, উত্তর বনবিভাগের বাঘখালী রেঞ্জে বাঘখালী বিটের আওতাধীন রামু কাউয়ারখোপ এলাকায় অবৈধভাবে মাছ চাষের জন্য পাহাড়ের মাটি কেটে বাঁধ তৈরির
করছিল বনখেকোরা। এছাড়া বনভূমি অবৈধ জবরদখল করে ঘেরাবেড়া দিয়ে লেবু চাষ করার অপচেষ্টা চালায় বনূস্যুরা।

খবর পেয়ে ২ জুলাই (বৃহস্পতিবার) সকালে বাঘখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা এমকেএম আতা এলাহীর নেতৃত্বে বনকর্মীরা অভিযান চালিয়ে মাছ চাষের বাঁধ কেটে উচ্ছেদ করা হয় এবং লেবুচারা কেটে ও ঘেরাবেড়া ভেংগে আনুমানিক ১.৫০ একর বনভূমি জবরদখল মুক্ত করা হয়।

উচ্ছেদ অভিযান শেষে ঘটনাস্থল ত্যাগ করার সময় স্থানীয় চিহ্নিত বনদস্যুদের অতর্কিত হামলায় আহত হন অভিযানে অংশগ্রহণকারী বনকর্মীরা।

এব্যাপারে রেঞ্জ কর্মকর্তা একে এম আতা এলাহী বলেন, কাউয়ারখোপের পাতা খোলা এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান শেষে ফেরার পথে উৎপেতে থাকা বনদস্যুরা হামলা চালায়। এতে গুরুতর আহত হন বাঘখালি বিট কর্মকর্তা।

কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা তহিদুল ইসলাম বলেন, বনকর্মীদের উপর হামলার ঘটনায় জড়িত ৫ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামাসহ ৮ জনকে আসামি করে রামু থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য দিন