রোজাদারের মাঝে ইফতার সামগ্রী ও অর্থ বিতরণ করলেন এমপি প্রার্থী কাজী ফরিদুল হক হ্যাপি

শোভন ইসলাম, ঢাকা।।কোভিড-১৯ জনিত উদ্ভূত পরিস্থিতিতে লকডাউন চলাকালীন সময়ে কর্মহীন হয়ে পড়া হতদরিদ্র ও অস্বচ্ছল পরিবারের মাঝে নিজ উদ্যোগে ইফতার ও নগদ অর্থ প্রদান করেন দারুসসালাম থানা আওয়ামী লীগ সাধারন সম্পাদক ও সম্প্রতি ঢাকা ১৪ আসনের এমপি আসলামুল হকের মৃত্যুতে শূন্য আসনটিতে এমপি পদপ্রার্থী কাজী ফরিদুল হক হ্যাপি।

কাজী ফরিদুল হক হ্যাপি এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহন করেন। যিনি আসন্ন ঢাকা ১৪ আসনের সংসদ সদস্য নির্বাচনে এমপি পদপ্রার্থী।

তিনি দারুসসালাম থানা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এবং সরকারী বাংলা কলেজের ছাত্র লীগের সভাপতি ছিলেন। ঢাকা ১৪ আসনের প্রতিটি ওয়ার্ডে শেখ হাসিনার উন্নয়নের বাণী পৌঁছে দিচ্ছেন জনসাধারণকে।
কাজী ফরিদুল হক হ্যাপি মিরপুর ওয়ার্ডবাসির নানা সমাজসেবা মূলক কর্মকান্ডের সাথে দীর্ঘ দিন ধরে জড়িত। আর এইসব উন্নয়ন ও সমাজসেবা মূলক কর্মকান্ডের জন্য এলাকায় খুব অল্পসময়ে সবার প্রিয় ব্যক্তি হিসেবে স্থান করে নেন, ঢাকা ১৪ আসনের প্রতিটি ওয়ার্ডের জনসাধারণের মাঝে। কাজী ফরিদুল হক হ্যাপি-কে সকল শ্রেণী পেশার মানুষ ভালবাসেন এবং সুখে দুঃখে তিনি সকলের পাশে দাঁড়ান।
তিনি বরাবরের মতই এলাকার বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত আছেন। সম্প্রতি তিনি করোনা মহামারির মধ্যে এলাকার অসহায় দুস্থ্য মানুষের মাঝে বিভিন্ন সামগ্রী ও নগদ অর্থ প্রদান করেন। তার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে অসহায় দুস্থ্যদের মাঝে করোনাকালীন সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন এবং তা প্রথম রমজান থেকেই অব্যাহত আছে।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মিরপুর ওয়ার্ড বাসির সব শ্রেনীর পেশার মানুষ বিশেষ করে তরুণ যুবসমাজের পছন্দের ব্যক্তি হ্যাপি। এলাকার উন্নয়নে এবং অসহায় মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে হ্যাপি-কে সংসদ সদস্য হিসেবে প্রত্যাশা করছে।
ঢাকা ১৪ আসনের সর্বস্তরের জনগণের কাছে দোয়া ও সহযোগীতা কামনা করেন। তিনি বলেন, আমি আপনাদের এলাকার সন্তান, আপনাদের পাশে থাকার সুযোগ দিন। আমি সবার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করছি।

আপনার মন্তব্য দিন