আদালতে সাক্ষ্য দিচ্ছেন নুসরাতের দুই বান্ধবী

ডেস্ক রিপোর্ট :

সোনাগাজীর মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যা মামলায় তৃতীয় দিনের মত বাদীপক্ষের হয়ে সাক্ষ্য দিচ্ছেন নুসরাতের দুই বান্ধবী ও সহপাঠী নিশাত সুলতানা ও নাসরিন সুলতানা ফূর্তি।

ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামুনুর রশিদের আদালতে প্রথমে সাক্ষ্য দেন নিশাত সুলতানা। পরে নাসরিন সুলতানা ফূর্তির সাক্ষ্য দেয়ার কথা রয়েছে। এর আগে, আদালতে ১৬ আসামিকে হাজির করা হয়। গত ২৭শে জুন মামলার বাদী নুসরাতের বড় ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান সাক্ষ্য দেন এবং ১৬ আসামির আইনজীবির জেরা শেষ হয় ৩০শে জুন। ২০শে এপ্রিল ১৬ জনকে আসামি করে অভিযোগপত্র জমা দেয় পিবিআই। এ মামলার চার্জশিট জমা দেয়ার আগে ৭ জন সাক্ষী আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত ৬ই এপ্রিল ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাতের গায়ে আগুন দেয়া হয়। পরে ১০ই এপ্রিল ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলার বিরুদ্ধে করা শ্লীলতাহানির মামলা তুলে না নেওয়ায় তাকে হত্যা করা হয় বলে মৃত্যুশয্যায় নুসরাত বলে গেছেন।

এ ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্যের দায়িত্বে অবহেলার প্রমাণ মিলেছে। এছাড়া, যৌন হয়রানির মামলার পর নুসরাতের জবানবন্দি গ্রহণের সময় ভিডিও ধারণ করে তা ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে সাইবার আইনে মামলা হওয়ার পর সোনাগাজী থানার তৎকালীন ওসি মোয়াজ্জেমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

 

আপনার মন্তব্য দিন