আন্তর্জাতিক মানের পর্যটন নগরী হবে কক্সবাজার-স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন ॥

কক্সবাজারকে আন্তর্জাতিকমানের পর্যটন নগরীতে রূপান্তর করতে সব ধরণের পরিকল্পনা গ্রহন করছে সরকার। যার ধারাবাহিকতায় এখানে প্রায় তিন লক্ষ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলমান রয়েছে। উন্নয়ন হবে আরো হাজার কোটি টাকার। সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগিতা পেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এ উদ্যোগ দ্রুত বাস্তবায়ন হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন সমবায় মন্ত্রী মো: তাজুল ইসলাম এমপি।

বৃহস্পতিবার রাতে কক্সবাজারে জেলার উন্নয়ন কার্যক্রম নিয়ে কলাতলীর তারকামানের হোটেল দ্যা কক্স টুডে’র সম্মেলন কক্ষে কক্সবাজার পৌরসভা ও জেলা প্রশাসন আয়োজিত মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন। এছাড়া নিজের জন্মভূমি হিসেবে কক্সবাজারের সার্বিক উন্নয়নে বিশেষ আন্তরিকতার কথাও জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। তিনি জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘আপনারা চাইতে জানলে আমার দিতে আপত্তি নেই। আমি যেহেতু সারাদেশের তৃণমূলের উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ে আছি সেহেতু কক্সবাজারের জন্য অনেক কিছু করার সুযোগ আছে-আমার মন বলে এই কক্সবাজার একদিন সিঙ্গাপুরকে ছাড়িয়ে যাবে। আমাদের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত অন্যকোন দেশে নেই। তাই এটিকে বিশ^মানের করে গড়ে তুললে পর্যটন খাতে সবচেয়ে বড় ভুমিকা রাখতে পারবে কক্সবাজার।’

স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক (উপ-সচিব) শ্রাবস্তী রায়ের সভাপতিত্বে ও কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমানের স্বাগত বক্তব্যের মধ্যদিয়ে শুরু হওয়া সভায় স্থানীয় সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, সাইমুম সরওয়ার কমল, জাফর আলম, কানিজ ফাতেমা আহমেদ, স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, এলজিইডির প্রধান প্রকৌশলী সুশংকর চন্দ্র আচার্য্য, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী সাইফুর রহমান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ চৌধুরী, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তপক্ষের চেয়ারম্যান ফোরকান আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, উখিয়া-টেকনাফের সাবেক এমপি আবদুর রহমান বদি বক্তব্য রাখেন। এসময় মন্ত্রী কক্সবাজারকে ঘিরে মহাপরিকল্পনা প্রনয়নের তাগিদ দেন।

যৌথভাবে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন কক্সবাজার পৌরসভার প্যানেল মেয়র-২ হেলাল উদ্দিন কবির ও এবি ছিদ্দিক খোকন। সভায় কুতুবদিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান এড.ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী, উখিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী, সদর উপজেলা চেযারম্যান কায়সারুল হক জুয়েল, চকরিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদী, রামু উপজেলা চেয়ারম্যান সোহেল সরওয়ার কাজল, টেকনাফ উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল আলম, মহেশখালীর পৌর মেয়র মকসুদ মিয়া, টেকনাফের পৌর মেয়র হাজী মোহাম্মদ ইসলাম, চকরিয়া পৌর মেয়র আলমগীর চৌধুরী ও সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহফুজুর রহমান, জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি এড.রণজিত দাশ, কক্সবাজার প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহবুবুর রহমান, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সদস্য আয়াছুর রহমান,

জেলা কমিনিউটি পুলিশিংয়ের সভাপতি সাংবাদিক তোফায়েল আহমদ, সাধারণ সম্পাদক ও জেলা যুবলীগ সভাপতি সোহেল আহমদ বাহাদুর, কক্সবাজার পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল কর, কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক জাহেদ সরওয়ার সোহেল এবং কক্সবাজার পৌরসভার সকল কাউন্সিলরসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, জনপ্রতিনিধি ও সরকারী পদস্থ কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন। পরে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলামকে রূপার তৈরী মূল্যবান ‘নগর চাবি’ ও স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদকে বিশেষ সম্মাননা ক্রেস্ট উপহার দেন কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান। এর আগে হিলটপ সার্কিট হাউজের সভা কক্ষে উন্নয়ন সহযোগীদের সাথে এক বৈঠকে মিলিত হন মন্ত্রী।

আপনার মন্তব্য দিন