ফলোআপ-মহেশখালীতে রেঞ্জ কর্মকর্তাকে হামলার ঘটনায় ৩০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন ।।

কক্সবাজারের মহেশখালীতে সহকারী রেঞ্জ কর্মকর্তাসহ তিন বনকর্মীর উপর হামলার ঘটনায় জড়িত ৫ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরো ২৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।
সংরক্ষিত বনাঞ্চলে অনধিকার প্রবেশ, সরকারী কর্মচারীদের কর্তব্যপালনে বাধাসহ গুরুতর জখম করার অপরাধে কেরুনতলি বিট কর্মকর্তা আহসানুল কবির বাদী হয়ে ১ আগষ্ট রাতে মহেশখালী থানায় মামলাটি দায়ের করেছেন।
জানাগেছে,
চট্টগ্রাম উপকূলীয় বন বিভাগের আওতাধীন কক্সবাজারের মহেশখালী রেঞ্জের সহকারী রেঞ্জ কর্মকর্তা ইউসুফ উদ্দীনের নেতৃত্বে একদল বনকর্মী গত ৩০ জুলাই বিকালে মহেশখালীর কেরুনতলি করইবুনিয়ায় সংরক্ষিত বনভুমিতে গড়ে তোলা অবৈধ পানের বরজ উচ্ছেদ অভিযানে যান। সেখানে দখলবাজদের হামলায় গুরুতর আহত হন সহকারী রেঞ্জ কর্মকর্তা ইউসুফ উদ্দীন, কেরুনতলী বিট কর্মকর্তা আহসানুল কবির (৪৫) এবং বন বিভাগের নৌকা চালক জিয়া রহমান সহ আরো কয়েকজন বন কর্মকর্মী।
আহতদের মধ্যে সহকারী রেঞ্জ কর্মকর্তা ইউছুপ উদ্দিনের অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেথানে ইউছুপের মাথায় অস্ত্রোপচারের পর তাকে মুমুর্ষ অবস্থায় লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়।। গত তিনদিন যাবত তিনি লাইফ সার্পোটে মৃত্যুর প্রহর গুনছেন।
মহেশখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা সুলতানুল আলম চৌধুরী বলেন, বন কর্মীদের উপর দখলবাজদের হামলার ঘটনায় কেরুনতলি বিটের বনবিট কর্মকর্তা আহত আহসানুল কবির বাদী হয়েসংরক্ষিত বনাঞ্চলে অনধিকার প্রবেশ করে সরকারী কর্মচারীদের কর্তব্যপালনে বাধা, বেআইনি জনতা গঠন করে সরকারী কর্মচারীদের হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালিয়ে গুরুতর জখম করার অপরাধে ১ আগষ্ট রাতে মহেশখালী থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় ৫ জনের নাম উল্লেখ করে আরো অজ্ঞাত নামা ২৫ জনকে আসামী করা হয়। মহেশখালী থানার মামলা নং-১, জিআর-১৭৪, তাং-১/৮/২০২০
আসামীরা হলেন, মহেশখালী উপজেলার হোয়ানক ইউনিয়নের লম্বাইয়াকাটা গ্রামের কলিম উল্লাহ প্রকাশ কালাইয়্যার ছেলে মো.আনোয়ার হোসেন, আক্কেল আলীর ছেলে কলিম উল্লাহ প্রকাশ কালাইয়্যা,তার ছেলে আক্তার হোসেন, মো. হোসেন প্রকাশ ধলাইয়া, মৃত বসো আলী সিকদারের ছেলে মো. নাছির।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বিপ্লব বড়ুয়া জানান, সরকারী কর্মচারীদের হামলায় ঘটনায় জড়িত আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আপনার মন্তব্য দিন