মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৩২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
পুলিশ জনবান্ধব হয়ে সেবা নিশ্চিত করতে চান-পুলিশ সুপার হাসান ফুলছড়িতে বনবিভাগের অভিযানে ৪ একর বনভুমি দখলমুক্ত পেকুয়ায় ডাম্পার-সিএনজি সংষর্ষে ২ জন নিহত, আহত-৪ কক্সবাজার সৈকতে অশ্রুসিক্ত নয়নে প্রতীমা বির্সজন দিলো লাখো ভক্ত হাজী সেলিমের ছেলেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব বিসর্জনের ভিড় এড়াতে দীর্ঘতম সৈকত পাড়ে নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা চট্টগ্রামের দেওয়ানহাটে দোকান দখল ও ব্যবসায়ীর উপর হামলার অভিযোগ বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে কক্সবাজারের হিমছড়িতে গড়ে উঠবে পরিকল্পিত ও নান্দনিক হাউজিং প্রকল্প : কউককে সাধুবাদ জোন-ভিত্তিক লকডাউনের সিদ্ধান্ত ভুল ছিল-এলজিআর মন্ত্রী ইয়ুথ এনভায়রনমেন্ট সোসাইটি : প্রকৃতি অনঃপ্রাণ একদল তরুণ
সংবাদ শিরোনাম
পুলিশ জনবান্ধব হয়ে সেবা নিশ্চিত করতে চান-পুলিশ সুপার হাসান ফুলছড়িতে বনবিভাগের অভিযানে ৪ একর বনভুমি দখলমুক্ত পেকুয়ায় ডাম্পার-সিএনজি সংষর্ষে ২ জন নিহত, আহত-৪ কক্সবাজার সৈকতে অশ্রুসিক্ত নয়নে প্রতীমা বির্সজন দিলো লাখো ভক্ত হাজী সেলিমের ছেলেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব বিসর্জনের ভিড় এড়াতে দীর্ঘতম সৈকত পাড়ে নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা চট্টগ্রামের দেওয়ানহাটে দোকান দখল ও ব্যবসায়ীর উপর হামলার অভিযোগ বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে কক্সবাজারের হিমছড়িতে গড়ে উঠবে পরিকল্পিত ও নান্দনিক হাউজিং প্রকল্প : কউককে সাধুবাদ জোন-ভিত্তিক লকডাউনের সিদ্ধান্ত ভুল ছিল-এলজিআর মন্ত্রী ইয়ুথ এনভায়রনমেন্ট সোসাইটি : প্রকৃতি অনঃপ্রাণ একদল তরুণ

ঘরবন্দি অবস্থাতেই বেশি আশঙ্কা কোভিড সংক্রমণের: গবেষণা

নিউজ কক্সবাজার ডটকম
  • আপডেট টাইম শুক্রবার, ২ অক্টোবর, ২০২০

ডেস্ক রিপোর্ট।।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ আটকানোর জন্য প্রায় ছয় মাস ঘরবন্দি ছিল বিশ্বের বেশিরভাগ দেশ। তাতে অবশ্য আটকানো যায়নি সংক্রমণ। শুনতে আশ্চর্য লাগলেও সত্যি যে লকডাউনের পুরো ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে সাম্প্রতিক এক গবেষণার ফলাফল বলছে বদ্ধ জায়গায় কোভিড সংক্রমণের সম্ভাবনা সব চেয়ে বেশি।

আমরা সবাই জানি চীন থেকে এই ভাইরাস খুব অল্প সময়ের মধ্যে সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়েছে। গবেষকরা বলেছেন চীনের যে মানুষটির থেকে প্রথম সংক্রমণ হওয়া শুরু হয়েছিল, সেটি হয়েছিল শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত বাস থেকে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ইয়ে শেন জানিয়েছেন, এই ভাইরাস বায়ুবাহিত হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা, তার গবেষণা অন্তত সে রকমই বলছে।

জামা ইন্টারনাল মেডিসিন জার্নালে প্রকাশিত গবেষণায় উল্লেখ করা হয়েছে, দীর্ঘ সময় ধরে অনুমান করা হয়েছিল সংক্রমিত ব্যক্তির সংস্পর্শে এলেই কোভিড ১৯ পজিটিভ হওয়ার সম্ভাবনা। তবে সারা পৃথিবী জুড়ে যে লকডাউন হয়েছে, তাতে সংক্রমণ তেমন আটকানো যায়নি। পরে সারা দুনিয়া জুড়েই একাধিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলেছে এই রোগের সংক্রমণের বিষয়টা নিয়ে।

যেমন, দু’টি বাস নিয়ে একটি পরীক্ষা করা হয়েছিল। দু’টি বাসই শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত এবং তারা চলমান। এদের মধ্যে একটি বাসে একজন কোভিড পজিটিভ রোগী ছিলেন। পরে এদের মধ্যে অনেকের সংক্রমণ হয়। দেখা যায় যে সেই সব ব্যক্তির মধ্যে পজিটিভ রোগী থাকা বাসের যাত্রীর সংখ্যাই বেশি।

এই পর্যবেক্ষণ থেকে বলাই যায় যে বদ্ধ জায়গায় সংক্রমিত একজন রোগী থাকলেও বায়ুবাহিত হয়ে করোনা ভাইরাস খুব তাড়াতাড়ি অন্য দেহে ছড়ায়। সে কারণেই গবেষকরা বলছেন বদ্ধ জায়গা বা বন্ধ ঘরে একাধিক মানুষের সঙ্গে থাকলে মুখে মাস্ক পরা বেশি জরুরি। কারণ বদ্ধ জায়গায় বাতাস খেলে না। গবেষণার এই ফলাফল নিয়ে দুশ্চিন্তার খুব স্পষ্ট কারণ রয়েছে। ঘরেও যদি করোনার সংক্রমণের হাত থেকে রেহাই পাওয়ার উপায় না থাকে, সে ক্ষেত্রে কি ফেস মাস্ক খোলাই যাবে না? ঘুমোতে যেতে হবে তা পরে, ঘুম ভাঙবেও ওই অবস্থাতেই? এ বিষয়ে এখনও স্পষ্ট করে কিছু জানা যায়নি। তা বলে যে সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে তুড়ি মেরে, সে কথাও কি জোর দিয়ে বলা যায়? সূত্র: নিউজ এইটটিন

আপনার মন্তব্য দিন

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো সংবাদ>>
© All rights reserved © 2017-2020 নিউজ কক্সবাজার ডটকম
Theme Customized By Shah Mohammad Robel